Logo

সাভারে ১০ কারখানা ভাঙচুর, পুলিশের টিয়ারশেল, আহত ১০

সাভারে ১০ কারখানা ভাঙচুর, পুলিশের টিয়ারশেল, আহত ১০

সরকারি মজুরি কাঠামো বৃদ্ধি, বাস্তবায়ন ও সাভারে নিহত শ্রমিক হত্যার বিচারের দাবিতে চতুর্থদিনের মতো সড়ক অবরোধ করে আন্দোলনে নেমেছে গার্মেন্টস শ্রমিকরা। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা ১০ কারখানায় ভাঙচুর চালিয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে প্রায় শতাধিক পোশাক কারখানা। এ সময় পুলিশের টিয়ারশেল ও লাঠিচার্জে অন্তত ১০ শ্রমিক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আজ সকাল সাড়ে ৮টা থেকে মিরপুরের কালশীর ২২ তলা ভবনের সামনে ও সাড়ে ৯টা থেকে সাভারে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন  গার্মেন্টস শ্রমিকরা। এতে সড়কে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে।

জানা যায়, গাজীপুর, সাভার, আশুলিয়া, উত্তরা ও দক্ষিণখানের বিভিন্ন জায়গায় শ্রমিকরা সড়কে অবস্থান নিয়েছে। এতে করে যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

পুলিশের পল্লবী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোবারক করিম জানান, মজুরি কাঠামো বাস্তবায়নের দাবিতে তারা মূল সড়কে অবস্থান নিয়েছে। পুলিশ সদস্যরা সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। গত তিনদিন ধরে একই দাবিতে বিমানবন্দর, উত্তরা, সাভার, টঙ্গী, গাজীপুরে সড়কে অবস্থান নেয় গার্মেন্টস কর্মীরা।

এর আগে গতকাল শ্রমিকদের সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রীর জরুরী বৈঠক হয়। বৈঠকে মজুরি কাঠামোর অসঙ্গতি এক মাসের মধ্যে সমাধানের আশ^াস দিয়ে আজ থেকে শ্রমিকদেরকে কাজে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান বাণিজ্যমন্ত্রী ।