Logo

শ্রীলঙ্কায় হামলা: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১০

শ্রীলঙ্কায় হামলা: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১০

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো ও এর আশপাশের চারটি হোটেল ও তিনটি গির্জাসহ মোট আটটি স্থানে ভয়াবহ বোমা হামলায় নিহত মানুষের সংখ্যা তিনশ’ ছাড়িয়েছে। সবশেষ এ সংখ্যা ৩১০ বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আহত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন চার শতাধিক। নিখোঁজও রয়েছেন বেশ কিছু মানুষ। রোববার সকালে ও বিকেলে দফায় দফায় এ বোমা হামলার পর সোমবার সকালে শ্রীলঙ্কার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে প্রাণহারানোর সংখ্যা ২৯০ জন জানায় সংবাদমাধ্যম। তবে একদিনের ব্যবধানে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকালে সে সংখ্যা ২০ জন বৃদ্ধি পেয়ে ৩১০ জনে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে বাংলাদেশের আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতি জায়ানও রয়েছে। এছাড়া প্রাণ হারিয়েছে আট ভারতীয়ও। এদিকে রোববারের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় শোক পালন করছেন লঙ্কানরা। নিহতদের স্মরণে দেশজুড়ে তিন মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এছাড়া  হামলার দায় স্বীকার করেছে জামাত আল-তাওহিদ আল-ওয়াতানিয়া নামের একটি গ্রুপ।

রোববার খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের বড় ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উদযাপন করা হচ্ছিলো গির্জাগুলোতে। এর মধ্যেই সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কলম্বোর সেন্ট অ্যান্থনি গির্জায় বোমা হামলা হয়। আধঘণ্টার মধ্যেই হামলা হয় কলম্বোর ৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সেন্ট সেবাস্টিন গির্জা ও ২৫০ কিলোমিটার দূরে বাট্টিকালোয়ার জিওন গির্জায়।  প্রার্থনালয়গুলো যখন কাঁপছিল, সমানে হামলা হতে থাকে কলম্বোর অভিজাত কিংসবারি, সাংগ্রিলা এবং সিনামোন গ্র্যান্ড হোটেলে। এই হোটেলগুলোতে তখন বিপুলসংখ্যক বিদেশি নাগরিক ছিলেন। গোটা কলম্বোবাসী ঘটনার আকস্মিকতা কাটিয়ে না উঠতেই দেহিওয়ালা জেলার আরেকটি হোটেলে এবং দেমাতাগোদা জেলার একটি স্থাপনায় ফের হামলা হয়।