Logo

শরীয়তপুর-৩ আসনের বিএনপি প্রার্থী অপু ৫ দিনের রিমান্ডে 

শরীয়তপুর-৩ আসনের বিএনপি প্রার্থী অপু ৫ দিনের রিমান্ডে 

শরীয়তপুর-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির প্রার্থী মিয়া নূর উদ্দিন আহমেদ অপুকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। আজ বৃহস্পতিবার সিআইডির তদন্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাস বিরোধী আইনে দায়ের হওয়া মামলায় নুর উদ্দিন অপুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। সিআইডির পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম জানান, মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের হওয়া মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলাম। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দাবি, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সারা দেশে কালো টাকা ছড়ানোর অভিযোগে র্যাব মিয়া নূর উদ্দিনসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় র্যাব ছয়জনের বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা করে। মিয়া নুরুদ্দীন অপুর পক্ষে মো. তরিকুল ইসলামসহ কয়েকজন আইনজীবী রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিনের আবেদন করেন। শুনানিতে তারা বলেন, অপু বিএনপি মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ছিলেন। তার সুনাম ক্ষুণ্ন, নির্বাচনে যেন অংশগ্রহণ করতে না পারে সেজন্য তাকে মামলায় জড়ানো হয়েছে। তারা আরো বলেন, নির্বাচনের আগে তার এলাকায় তিনি সন্ত্রাসী হামলায় জখম হন। তার মাথায় ১৭টি সেলাই লেগেছে। তাকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় আনা হয়। তিনি অসুস্থ। এ অবস্থায় রিমান্ড দিলে তার জীবন বিপন্ন হতে পারে। প্রয়োজনে তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক। গত ২৪ ডিসেম্বর তাকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই ৪ জানুয়ারি তাকে গ্রেফতার দেখায় র্যাব-১।