Logo

বিশ্বকাপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে যা বলল আইসিসি

বিশ্বকাপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে যা বলল আইসিসি

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য এবারের ক্রিকেট বিশ্বকাপে সম্ভাব্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডেভিড রিচার্ডসন। বিশ্বকাপ চলাকালীন ক্রিকেটার ছাড়াও ম্যাচ অফিশিয়াল, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, দর্শক, ভক্ত ও অন্য সবের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছেন এই আইসিসি কর্মকর্তা। অন্য সবকিছুর আগে নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় রেখে এ বিষয়ে কোনো শিথিলতা প্রদর্শন করা হবে না বলেও সংবাদমাধ্যম ক্রিকইনফোকে জানিয়েছেন সংস্থাটির এই শীর্ষ কর্মকর্তা।

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ড সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা ক্রাইস্টচার্চে একটি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যান। ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভাল স্টেডিয়ামের পাশেই একটি মসজিদে জুমার নামাজের সময় সংঘটিত হামলায় প্রায় ৫০ জন নিহত হন। এ সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের নিরাপত্তার দায়িত্বে তখন কোনো কর্মকর্তা বা দায়িত্বরত কেউই ছিল না। ঘটনার পরপরই প্রশ্ন উঠেছে আইসিসির অনাগত ইভেন্টগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। বিশেষ করে সামনেই ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সেখানে কেমন নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে, সেটা নিয়ে এরই মধ্যে বিভিন্ন মহল থেকে প্রশ্ন উঠেছে।

এসব আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতেই আইসিসি কর্মকর্তা ডেভিড রিচার্ডসন জানিয়েছেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ঘটনাটা অনেককেই একেবারে বিস্মিত করে দিয়েছে। এ ঘটনায় বোঝা গেছে যে আগামী দিনগুলোতে, বিশেষ করে সামনের বিশ্বকাপে নিরাপত্তা নিয়ে কোনো শিথিলতার সুযোগ নেই।’

আগামী ৩০ মে থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত চলবে বিশ্বকাপের আসর। আসরের আয়োজক সংস্থা হিসেবে আইসিসিকে কড়া নজর রাখতে হচ্ছে নিরাপত্তা ইস্যুটির ওপর। এ বিষয়ে এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট পরিকল্পনা প্রণয়নের কাজ শেষ করা হয়েছে মর্মে জানিয়ে রিচার্ডসন বলেন, ‘আমরা ইংল্যান্ডের প্রতিটি নিরাপত্তা সংস্থা ও বিশ্বকাপের নিরাপত্তাবিষয়ক পরিচালকসহ সবাই একসঙ্গে বসে প্রয়োজনীয় পরিকল্পনার কাজ সম্পন্ন করেছি। আসরে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সবার চেষ্টার কোনো ত্রুটি থাকবে না। এরপরও বিশেষ কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে আমরা আমাদের পরিকল্পনা নতুন করে সাজিয়ে নেব।’