Logo

বাইকার গ্যাংস্টার গ্রুপের ৮ কিশোর গ্রেফতার

বাইকার গ্যাংস্টার গ্রুপের ৮ কিশোর গ্রেফতার

রাজধানীতে এলাকাভিত্তিক গ্যাং কালচার বাহিনীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এ বাহিনীর তৎপরতা বেশ ভয়ানক। তাদের চলাফেরা, ধরন সন্ত্রাসী স্টাইলে। র‌্যাব-৩-এর একটি দল এক পক্ষকাল খিলগাঁও, তালতলা ও শাহজাহানপুর এলাকার কিশোরদের ওপর নজর রাখে। নজরদারির অংশ হিসেবে র‌্যাব কয়েকজনকে শনাক্ত করে। মঙ্গলবার র‌্যাবের পক্ষ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শনাক্ত করা কিশোরদের মধ্যে ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হল : মেহেদী হাসান (২২), শাহরিয়ার (২২), কাজী ইউসুফ বিন শওকাত ওরফে অনিক (১৯), আমিনুল ইসলাম ওরফে আমিন (২০), আবু হুরায়রা আদিব (১৮), সাব্বির হোসেন (১৮), শিশির আহম্মেদ ওরফে সজল (২২), মাজহারুল ইসলাম ওরফে অনিক ইসলাম (২১)। সবাই ঢাকার বাইকার গ্যাংস্টার বাহিনীর সদস্য।

র‌্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল এমরানুল হাসান যুগান্তরকে জানান, গ্যাংস্টার দলের কয়েক সদস্য সম্প্রতি তালতলার একটি ফাস্টফুডের সামনে এক হয়। সেখান থেকে ২০-২৫টি মোটরসাইকেল নিয়ে শোডাউন শুরু করে। এরপর মেম্বার গলির বিকাশের এক এজেন্টের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। দোকানের মালিক মনির হোসেন টাকা দিতে অস্বীকিৃতি জানালে প্রথমে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। গ্যাংস্টার বাহিনীর রাব্বী ও অদিত দোকানের দিকে তাক করে পিস্তল দিয়ে কয়েক রাউন্ড গুলি চালায়। এতে দোকানের মালিক প্রাণে বেঁচে গেলেও ২-৩টি গুলি তার সামনে থাকা টেবিল ভেদ করে চলে যায়। বাইকার দলের সদস্য অদিত টেবিলের ড্রয়ারে মোবাইল ও হিসাব খাতায় আঘাত করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে জানতে র‌্যাবের দল ঘটনাস্থল যায় ও কিশোরদের সম্পর্কে তথ্য নেয়। একপর্যায় আদিবকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। সবার ব্যাপারে তথ্যও দেয়। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে একটি ডামি পিস্তল, মোটরসাইকেল ও গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়।