Logo

পুনঃনির্বাচনের দাবিতে আমরণ অনশনে রোকেয়া হলের ৬ ছাত্রী

পুনঃনির্বাচনের দাবিতে আমরণ অনশনে রোকেয়া হলের ৬ ছাত্রী

রোকেয়া হল ছাত্র সংসদে পুনরায় নির্বাচন ও হল প্রভোস্ট জিনাত হুদার পদত্যাগসহ চার দফা দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছে রোকেয়া হলের ছয় শিক্ষার্থী। আজ বুধবার রাত ৯টা থেকে হলের মূল ফটকে অবস্থান নিয়েছেন তারা।

অনশনকারী শিক্ষার্থীরা হলেন-রাফিয়া সুলতানা, শ্রবণা শফিক দিপ্তী, প্রমী খিসা, শেখ সায়িদা আফরিন শাফি, জয়ন্তী রায়না, সায়িদা আফরিন শাফি। তারা বলেন, আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা এখানে অবস্থান করব।

চার দফার মধ্যে আরও রয়েছে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে এবং আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। এ সময় পাশেই প্রায় পঞ্চাশ জন শিক্ষার্থী তাদের দাবির পক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন।

এর আগে ডাকসু ও হল সংসদের নির্বাচন বাতিল করে পুনঃতফসিলের দাবিতে অনশনে বসেন স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ক্যাম্পাসের ৬ শিক্ষার্থী। গতকাল মঙ্গলবার রাত থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে আমরণ অনশনে বসেন তারা।

অনশনকারীরা হলেন- ডাকসুতে ছাত্র পরিবহন পদে প্রতিদ্বন্দিতাকারী কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র তাওহীদ তানজীম, জগন্নাথ হল সংসদের সদস্য প্রার্থী দর্শন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র অনিন্দ্য মন্ডল, শহীদুল্লাহ হল সংসদে সাহিত্য সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী শোয়েব মাহমুদ, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল সংসদে সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদপ্রার্থী পপুলেশন সায়েন্সের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মুহাম্মদ মাইনুদ্দিন ও ভূগোল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের রনি হোসেন।

এদের মধ্যে অনিন্দ্য মণ্ডল অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে আজ  দুপুরের পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অনিন্দ্যের সঙ্গে অনশনে থাকা আল মাহমুদ ত্বাহা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘হঠাৎ সে অসুস্থ হয়ে কাঁপতে থাকলে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।’