Logo

‘এই ম্যাচের আগে সবাই পণ করেছিলাম, জিততেই হবে’

‘এই ম্যাচের আগে সবাই পণ করেছিলাম, জিততেই হবে’

২০১৬ সালের অক্টোবরে এএফসি এশিয়ান কাপের প্রাক-বাছাইয়ে ভুটানের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছিল  বাংলাদেশ। ওই হারে প্রায় এলোমেলো হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ফুটবল। আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে ১৭ মাসের জন্য নির্বাসনে থাকে বাংলাদেশ। শুরু হয় বাংলাদেশ ফুটবলের এক কালো অধ্যায়।

২৩ মাস পর ঘরের মাঠে ওই ভুটানকে ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধই নিয়েছেন তপু বর্মণ-মামুনুল ইসলামরা। ম্যাচ শেষে জাতীয় দলের মিডফিল্ডার মাশুক মিয়া জনি জানালেন, দুই বছর আগের সেই হার তাতিয়ে রেখেছিল পুরো দলকেই। ম্যাচের আগে তাই সবার প্রতিজ্ঞা ছিল, জিততেই হবে।

ভালো খেলার সেই প্রচেষ্টার ফলাফল দেখা গেছে মাঠেই। এ নিয়ে ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাশুক মিয়া জনি বলেন, ‘দুই বছর আগে ভুটানের কাছে হারের পরই আমাদের ফুটবলটা আরও নিচে নেমে যায়। এই ম্যাচের আগে সবাই পণ করেছিলাম—জিততেই হবে, ভালো খেলতে হবে।

খেলা শুরুর আগে কোচও (জেমি ডে) আমাদের একটা কথাই বলেছিল, তোমাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলো। তোমরাই জিতবে। সেটাই করে দেখিয়েছি। এখন অনেক ভালো লাগছে। দর্শকরা অনেক দিন পর মাঠে এসেছে। আমাদের সহযোগিতা করেছে। এতে করে আমরা উজ্জীবিত হয়েছি। আশা করছি তাদের এই সমর্থন ভবিষ্যতেও থাকবে।’

বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে অবশ্য পুরনো কথা নিয়ে আলোচনা করতে চাননি। বরং তার ভাবনায় গ্রুপের পরের দুই ম্যাচ। এ নিয়ে জেমি ডের ভাষ্য, ‘এমন জয়ের পর আসলে পুরনো কথা নিয়ে আলোচনা না করাই ভালো। আমরা এই ম্যাচ জিতেছি, এটাই বড় বিষয়।

আমরা যোগ্য দল হিসেবেই ম্যাচ জিতেছি। আমি যেমনটি চেয়েছিলাম, দল সেভাবেই খেলেছে। আগের চেয়ে দলের পারফরম্যান্স ভালো হয়েছে। আমি এই জয়ে বেশ খুশি। এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। জানি পাকিস্তান শক্তিশালী প্রতিপক্ষ, তারপরও আমরা সব ম্যাচে ভালো খেলতে চাই।’