Logo

আমি উনার কাছে ঋণী : আইভী

আমি উনার কাছে ঋণী : আইভী

সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম রাজনৈতিক জীবনের আদর্শ ছিলেন বলে স্মরণ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা। মহান এ নেতার আদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানাতে চান বলেও জানান তারা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শহরের ২নং রেল গেট এলাকায় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রয়াত আশরাফুল ইসলামের স্মরণ সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। এ সময় তার রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ৭৪ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি হলেও অর্ধকের বেশি সদস্যই উপস্থিত ছিলেন না। ফলে সভা ছিল ফাঁকা।

সভায় নারায়ণগঞ্জের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য হোসনে আরা বেগম বাবলী বলেন, 'তিনি সর্বদা মানুষের সেবায় কাজ করে গেছেন। কখনো নিজের স্বার্থের জন্য কোনো কাজ করেননি।'

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই বলেন, 'বঙ্গবন্ধুর আস্থাভাজন লোক ছিলেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। অসাধারণ কাজ করে গেছেন তিনি। শেষ সময় সংসদ সদস্য হয়েও শপথ নিতে পারেননি। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম নেতাদের মূল্যায়ন করতেন। একজন সংসদ সদস্য হয়েও তার তেমন কোনো সম্পদ ছিল না। উনার স্ত্রীও ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। সেই সময় তিনি চিকিৎসার জন্য নিজের বাড়ি বিক্রি করেন। আর এখনও যখন তিনি অসুস্থ হয়েছেন তখনও কারো কাছ থেকে সহযোগিতা নেননি। সব মিলিয়ে তার রাজনৈতিক জীবন সকলের জন্য অনুকরণীয়। উনার আদর্শ অনুসরণ করলেই তাকে শ্রদ্ধা জানানো হবে।'

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, 'আমি উনার কাছে ঋণী।'

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহিদ বাদলের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জজামান আসাদ, আব্দুল কাদির, আদীনাথ বসু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ড. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাসুদ উর রউফ, দপ্তর সম্পাদক এমএ রাসেল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রানু খন্দকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, একেএম আবু সুফিয়ান প্রমুখ।