Logo

অনুমোদন পেতে পারে নতুন তিন ব্যাংক

অনুমোদন পেতে পারে নতুন তিন ব্যাংক

বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা আজ বেলা ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে। পর্ষদের এ সভায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হতে পারে নতুন তিনটি বাণিজ্যিক ব্যাংক। এজন্য আজকের পর্ষদ সভা ঘিরে কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সর্বশেষ পর্ষদ সভায় দেশের তফসিলভুক্ত ৫৯তম ব্যাংক হিসেবে পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্টের ‘কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’ অনুমোদন পেয়েছে। চলতি বছরেই তফসিলভুক্ত ব্যাংক হিসেবে বাণিজ্যিক কার্যক্রমের লাইসেন্স পেয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক। সব মিলিয়ে ২০০৯ থেকে এখন পর্যন্ত ১২টি ব্যাংকের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আজকের পর্ষদ সভায় নতুন তিন বেসরকারি ব্যাংক অনুমোদন দেয়া হলে দেশে তফসিলভুক্ত ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়াবে ৬২-তে।

সূত্রমতে, বাংলাদেশ ব্যাংকের আজকের পর্ষদ সভায় প্রধান আলোচ্য বিষয় হবে নতুন ব্যাংক অনুমোদন। বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক ও পিপলস ব্যাংকের অনুমোদনের বিষয়টি অনেকটাই চূড়ান্ত। তবে সিটিজেন ব্যাংকের বিষয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে পর্ষদ সভা থেকে।

ব্যাংক তিনটির উদ্যোক্তারাও চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ার বিষয়ে অনেকটাই নিশ্চিত। বেঙ্গল কমার্শিয়াল ও পিপলস ব্যাংকের একাধিক উদ্যোক্তা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের আজকের পর্ষদ সভায় ব্যাংক দুটির চূড়ান্ত অনুমোদনের প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পর্ষদ থেকে যেসব নথিপত্রের ঘাটতির কথা জানানো হয়েছিল, এরই মধ্যে তা সরবরাহ করা হয়েছে।

অনুমোদন পেতে যাওয়া ব্যাংকগুলোর মধ্যে ‘বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের’ জন্য আবেদন করেন বেঙ্গল গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন। যদিও শুরুতে ‘বাংলা ব্যাংক’ নামেই অনুমোদনের আবেদন জমা দেয়া হয়েছিল। বেঙ্গল গ্রুপের অধীনে বর্তমানে বিভিন্ন খাতের প্রায় ২০টি শিল্প ও সেবা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বেঙ্গল গ্রুপের চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন নোয়াখালী-২ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম, যিনি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালক। এর আগে তিনি ব্যাংকটির চেয়ারম্যানও ছিলেন। ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন মোরশেদ আলম। এছাড়া তিনি ইউনাইটেড হসপিটাল ও পিপলস ইউনিভার্সিটির পরিচালক।

পিপলস ব্যাংক লিমিটেডের জন্য আবেদন করেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা এমএ কাশেম। চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের এ অধিবাসী যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। শরিয়াহভিত্তিক ব্যাংকিংয়ের জন্য ব্যাংকটির আবেদন করা হয়েছে।

সিটিজেন ব্যাংকের আবেদনটি এসেছে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের পরিবার থেকে। আনিসুল হকের মা জাহানারা হককে ব্যাংকটির চেয়ারম্যান হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে আবেদনপত্রে।